Main Menu

উপজেলা নির্বাচন

নৌকা প্রতীকের মিছিলে যাওয়ায় বাড়ীঘর ভাংচুর করেছে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকরা: আহত ৫

মাদারীপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মিছিলে যাওয়ায় ক্ষীপ্ত হয়ে বাড়ীঘরে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাত করেছে বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা। রবিবার সকালে মাদারীপুর সদর উপজেলার ছিলারচর ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সদর উপজেলার ছিলারচর ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামের সিরাজ রাঢ়ীর ছেলে রিপন রাঢ়ী শনিবার বিকেলে আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী কাজল কৃষ্ণ দে’র নির্বাচনী মিছিলে অংশ নেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর ও সাবেক নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানের ছোট ভাই এ্যাড. ওবাইদুর রহমান কালু খানের কর্মী-সমর্থক একই গ্রামের সিদ্দিক মোল্লার ছেলে রনক মোল্লা, জলফু মোল্লার ছেলে বিল্লাল মোল্লা, সোবাহান রাঢ়ী, মোফাজ্জর আকন, মন্নান ফকিরসহ ১৫ থেকে ২০ জন সিরাজ রাঢ়ীর বাড়ীতে হামলা চালায়।
এতে তার বসতবাড়ী ও আসবারপত্র ভেঙ্গে মূল্যবান জিনিসপত্র লুটপাত করে নিয়ে যায়। এতে সিরাজ রাঢ়ী, রিপন রাঢ়ী, আলেকজানসহ ৫ জন গুরুতর আহত হয়।

এই ঘটনার জেরে আবারও রবিবার সকালেও বাড়ীঘর ভাংচুর করে। এই ঘটনায় মাদারীপুর সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

এব্যাপারে ভূক্তভোগি রিপন রাঢ়ী জানান, ‘আমরা আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের কর্মী-সমর্থক হাওয়ায় আমাদের বাড়ীঘরে হালমা চালানো হয়েছে। আমার ঘরের নগদ টাকা, স্বণালঙ্গারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে গেছে। আমরা এই ঘটনার বিচার চাই।’

এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি সিরাজুল হক সর্দার জানান, এই ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। যদি কেউ মামলা দেয়, তাহলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে।’






News Room - Click for call