Main Menu

টুঙ্গিপাড়ায় এক্সরে বাবদ অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি:

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেস্কের এক্সরে টেকনিশিয়ান অনুকুল চন্দ্র পান্ডের বিরুদ্ধে এক্সরে বাবদ অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, তিনি প্রতিটি এক্সরে বাবদ ২৫০-৩০০ টাকা নিয়ে থাকেন। কিন্তু টাকা নেওয়ার কোনো রশিদ দেন না। আর কেউ রশিদ চাইলে তার সাথে শুরু হয় দুর্ব্যবহার এবং রশিদের মাধ্যমে টাকা দিতে চাইলে তিনি বলেন রশিদ নেই টাকা দিলে দেন না দিলে এক্সরে হবে না। এছাড়া তিনি নিজের খেয়াল খুশিমতো এক্সরে বিভাগটি পরিচালনা করেন।

উপজেলার পাটগাতী গ্রামের ভূক্তভোগী জামাল উদ্দিন জানান, তিনি তার সন্তানের বুকের জন্য এক্সরে করতে গেলে তার কাছে ৩০০ টাকা চায়। কিন্তু রশিদ চাইলে তা দিতে নারাজী প্রকাশ করেন। এছাড়া তিনি তাকে বলেন এক্সরে করলে করবেন না করলে না করবেন।

গিমাডাঙ্গা গ্রামের নুহু বিশ্বাস, এমরান বিশ্বাস, বাশবাড়ীয়া গ্রামের কনা সহ কয়েকজন ভূক্তভোগী জানান, তারা শরীরের বিভিন্ন জায়গায় সমস্যার জন্য এক্সরে করাতে গেলে তাদের কাছ থেকে ২৫০ টাকা নিয়েছেন কিন্তু তাদের কোনো রশিদ দেয়নি।

তবে এবিষয়ে টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেস্কের এক্সরে টেকনিশিয়ান অনুকুল চন্দ্র পান্ডের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি কোনো বক্তব্য দিতে রাজি হয়নি।

এব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, প্রতিটি এক্সরে বাবদ তিনি ২০০ টাকা নিতে পারবেন যেটা সরকারি কোষাগারে জমা হবে। কিন্তু এর থেকে বেশি নেয়া যাবে না। এছাড়া তার বিরুদ্ধে পূর্বে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।






News Room - Click for call