Main Menu

স্যানিটারি ন্যাপকিনের কাঁচামালের ওপর অতিরিক্ত ভ্যাট প্রত্যাহার

স্যানিটারি ন্যাপকিনের কাঁচামাল আমদানিতে ৪০ শতাংশ ভ্যাট আরোপের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে সরকার। ফলে নতুন করে অতিরিক্ত কোনো ভ্যাট বসছে না নারীদের জরুরি প্রয়োজনীয় এ পণ্যের উপর। কাজেই এ পণ্যের দাম বাড়ারও সম্ভাবনা নেই।

রবিবার (৩০ জুন) অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এরপর সোমবার (১ জুলাই) গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের বিষয়টি জানানো হয়।

নতুন (২০১৯-২০) অর্থবছরের বাজেটে স্যানিটারি ন্যাপকিনের কাঁচামালের আমদানিতে ৪০ শতাংশ অতিরিক্ত ভ্যাট আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। সাথে এ পণ্যের ওপর আগেই আরোপকৃত ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর তো আছেই। এছাড়া আরও রয়েছে কাস্টমস ডিউটি, অগ্রিম আয়কর, রেগুলেটরি ডিউটি। এসব কারণে চড়া মূল্যে জরুরি প্রয়োজনীয় এ পণ্য কিনতে বাধ্য হয় ক্রেতারা।

স্যানেটারি ন্যাপকিনের ওপর এমন ভ্যাট বাড়ায় ক্ষোভে ফুঁসতে থাকে সাধারণ মানুষ। সোশ্যাল মিডিয়াসহ সর্বত্র শুরু হয় এ সিদ্ধান্তের তীব্র সমালোচনা। অতিরিক্ত এ ভ্যাট প্রতাহারের দাবি উঠে সকল সচেতন মহলে। মানববন্ধনও করে বিভিন্ন সংগঠন।

অবশেষে সরকার নিজেদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার সিদ্ধান্ত নিলো। অতিরিক্ত ৪০ শতাংশ ভ্যাট প্রত্যাহার করা হয়েছে। বহাল থাকছে আগের ১৫ শতাংশই।






News Room - Click for call