Main Menu

ওল্ডট্রাফোর্ডে ভারতের বিপক্ষে শেষ সুযোগ ওয়েস্ট ইন্ডিজের

বুধবার (২৬ জুন) ক্রিকেটের সবচেয়ে আলোচিত খবর, বিম্বকাপের পর অবসর নিচ্ছেন না ক্রিস গেইল। ঘরের মাঠে ভারতের বিপক্ষে দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলতে চান তিনি। টেস্ট ক্রিকেটও মাঠে দেখা যাবে তাকে।

এমন খবরে গোটা উইন্ডিজ শিবির অনেক বেশি উজ্জিবিত। বিংশ শতাব্দী থেকে খেলা শুরু করা গেইল এখন দলের প্রেরণা। ভারতের বিপক্ষে হারের বৃত্ত থেকে বের হওয়ার ছকটাও কষছে তারা গেইলকে ঘিরে। আগের ম্যাচে ব্রাথওয়েটের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিও ক্যারিবীয়দের জন্য আশা জাগানিয়া ব্যাপার।

অপরদিকে, জিতলে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের সেমিফইনালে উঠার পথ সহজ হবে, এমন হিসেব মাথায় রেখে ওল্ডট্রাফোর্ডে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে মাঠে নামছে ভারত। ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ এলে ভারতের চোখ যায় ১৯৮৩ সালের দিকে। সেবার ফাইনালে ভিভ রিচার্ডসের উইন্ডিজদের হারিয়ে কপিল দেবের ভারত জিতেছিল বিশ্বকাপ। ১৯৮৩ সালে গ্রুপ পর্বে ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজের একটি ম্যাচ হয়েছিল এ ম্যানচেস্টারেই। যেখানে উইন্ডিজদের হারানোর সুখ স্মৃতি রয়েছে ভারতের।

এ বিশ্বকাপে একমাত্র অপরাজিত দল টিম ইন্ডিয়া। দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তানের মতো শক্তিশালী দলকে হারিয়েছে তারা। শেষ ম্যাচে কষ্টের জয় এসেছে আফগানিস্তানের সঙ্গে। গত ম্যাচে আফগানিস্তানের সঙ্গে টপ অর্ডারের ব্যর্থতার পর মিডল অর্ডার কোন মতে প্রতিরোধ করেছে। উইন্ডিজদের বিপক্ষে মিডল অর্ডারকে আরেকবার পরখ করে নিতে পারবেন ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। বোলিং আক্রমণে চাহালের বদলে  রবীন্দ্র জাদেজা খেলতে পারেন। কারণে ফিনিশিংয়ে ব্যাটিংয়ে জাদেজা অবশ্যই শ্রেয়তর। ভুবনেশ্বর চোট কাটিয়ে অনুশীলন করলেও তাকে নিয়ে ঝুকি নেবেনা টিম ইন্ডিয়া।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ শিবিরেও আসতে পারে পরিবর্তন, এভিন লুইস চোট থেকে সেরে না উঠলে সুনিল অ্যামব্রিস খেলবেন ওপোনিংয়ে। এ ম্যাচ হেরে গেলে বিদায় নিশ্চিত হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের। জিতলে ক্ষীণ আশা টিকে থাকবে। বিশ্বকাপে দুই দলের মুখোমুখিতে আটবারের লড়াইয়ে তিনবার জিতেছে উইন্ডিজরা, পাঁচবার জিতেছে ভারত। সবশেষ ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে ভারতকে হারায় ক্যারিবীয়রা। এবারের আসরে প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানকে হারানোর পর আর কোন ম্যাচ জিততে পারেনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রোটিয়াদের সঙ্গে বৃষ্টিতে এক ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়। সেমিতে উঠা অনেকটাই অসম্ভব তাদের। শেষ তিন ম্যাচ জেতার পাশাপাশি অনেক দলের ফলাফলের উপর নির্ভর করতে হবে ক্যারিবীয়দের।

ওল্ডট্রাফোর্ডকে মনে করা হয় ইংল্যান্ডের স্পিন রাজ্য। এখানেই অ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জিম লেকার টেস্টে ১৯ উইকেট নেন। ওয়ানডেতেও এক সময় স্পিনারদের দাপট ছিল। তবে ২০১৭ সালের পর থেকে ওয়ানডেতে এখানে পেসাররাই রাজত্ব করছে। স্পিনাদের উইকেট এই সময়ে এসেছে ১৫টি, যেখানে পেসাররা পেয়েছে ৫৬ উইকেট।

ম্যাচের আগে জেনে নেই  দুদলের লড়াইয়ের পরিসংখ্যান-

ওয়ানডেতে মুখোমুখি : ১২৬ ম্যাচে
ভারত – জিতেছে  ৫৯ ম্যাচে
ওয়েস্ট ইন্ডিজ –জিতেছে ৬২ ম্যাচে
টাই হয়েছে দুই ম্যাচ, ফলাফল হয়নি তিন ম্যাচে

বিশ্বকাপে মুখোমুখি : আট ম্যাচ
ভারত জিতেছে পাঁচ ম্যাচ
ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতেছে তিন ম্যাচ

ভারত একাদশ (সম্ভাব্য)

রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), বিজয় শঙ্কর, কেদার যাদব, এম এস ধোনি (উইকেটরক্ষক), হারদিক পান্ডিয়া, যুজবেন্দ্র চাহাল, কুলদীপ যাদব, জাসপ্রিত বুমরাহ, মোহামামদ শামি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ (সম্ভাব্য)

ক্রিস গেইল, সুনিল অ্যামব্রিস/এভিন লুইস, শাই হোপ, নিকোলাস পুরান (উইকেটরক্ষক), শিমরন হেটমায়ার, জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), কার্লোস ব্রাথওয়েট, অ্যাশলে নার্স, কেমার রোচ, শেলডন কটরেল ও ওশান থমাস।

ম্যানচেস্টারের ওল্ডট্রাফোর্ডে আজ বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায় শুরু হবে কোহলি-হোল্ডারের এ লড়াই।  সরাসরি দেখাবে গাজী টিভি, মাছরাঙা ও স্টার স্পোর্টস।






News Room - Click for call