Main Menu

নড়াইলে মোটরসাইকেল চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার

সোমবার (২৭,মে) ২৭৪\ নড়াইল শহরে দীর্ঘদিন ধরে একের পর এক মোটরসাইকেল চুরি হলেও চোর ধরা সম্ভব হয়নি। অবশেষে ধরা পড়ল মোটরসাইকেল চোর। ধরা পরার পর স্থানীয় জনতা তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

নড়াইল পৌর এলাকার বাণিজ্যিক এলাকা রূপগঞ্জ বাজারে ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের নিচে থেকে শাকিল (২৫) নামে ওই চোরকে আটক করা হয়। সে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার হাকিমপুর গ্রামের সাদিক মিয়ার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, পুরাতন বাসটার্মিনাল এলাকার ব্যবসায়ী ও ভওয়াখালী এলাকার মোস্তাক হোসেন ব্যবসায়ীক কাজের জন্য নড়াইলের রূপগঞ্জ বাজারের ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের নিচে মোটরসাইকেল (ডিসকভারি ১০০) রেখে প্রবেশ করেন। কাজ শেষে ফিরে এসে দেখেন শাকিল তাঁর মোটর সাইকেলের তালা খুলে ফেলেছেন।

এ সময় গাড়ির মালিক শাকিলকে হাতে-নাতে ধরে ফেলে। এ সময় তার কাছ থেকে তালা খোলার কাজে ব্যবহৃত দুইটি মাস্টার চাবি উদ্ধার করা হয়। পরে, স্থানীয় জনতা তাকে পিটুনি দিয়ে পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে।

নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) হরিদাশ কুমার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে, নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়কে রবিবার (২৬ মে) নড়াইল পৌর এলাকার বাণিজ্যিক এলাকা রূপগঞ্জ বাজারে ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের নিচে থেকে শাকিল (২৫) নামে ওই চোরকে আটক করা হয়। সে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানি উপজেলার হাকিমপুর গ্রামের সাদিক মিয়ার ছেলে। ‘মোটরসাইকেল চোর শাকিলকে উদ্ধার করে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন পিপিএম (বার) নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়কে বলেন, এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার (২৭,মে) সকালে নড়াইলের গুরুত্বপুর্ণ শপিংমল ও বিপনী বিতান গুলো পরিদর্শন করেন বর্তমানে নড়াইলের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অবস্থা খুবই সন্তোষজনক। সকলে মিলে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করলে জনগণের সেবার মান আরও উন্নত হবে। যেহেতু মানুষের বিপদের সময়ের প্রধান আশ্রয়স্থল হলো পুলিশ সেহেতু পুলিশকে তার কাজের প্রতি আরও আন্তরিক হতে হবে।

এছাড়াও মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাস নিমর্ূলে জিরো টলারেন্সের ভিত্তিতে কাজ করে যেতে হবে। আসন্ন ঈদুল ফিতরে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সার্বিক নিরাপত্তায় যে কোন ধরণের সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, ছিনতাই নির্মুলে প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ।






News Room - Click for call