Main Menu

আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে লক্ষ্মীছড়িতে গৃহবধুকে যৌন হয়রানী ও ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়িতে এক গৃহবধুকে যৌন হয়রানীর অভিযোগ উঠেছে এক আওয়ামীলীগ নেতার বিরুদ্ধে। বুধবার উপজেলার মেজর পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত নুরে আলম লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চরিত্রহীন আওয়ামীলীগের এই নেতার এ ধরনের ঘটনা নতুন কিছু নয়। বুধবার তিনি নিজের এক নিকট আত্মীয়কে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এই সময় তিনি ঐ গৃহবধুকে নানা ভাবে যৌন হয়রানী ও অনৈতিক কাজ করার চেষ্টা করে। কিন্তু ঐ গৃহবধু এ ঘটনার বিরুদ্ধে স্বোচ্ছার থেকে প্রতিবাদ করায় সে তার হাত থেকে রক্ষা পায়।

এঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এ ধরনের কাজের সাথে সম্পৃক্ত ব্যাক্তিকে সংগঠন থেকে বহিস্কারসহ দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানিয়েছে স্থানীয় সচেতন এলাকাবাসী ও ঐ গৃহবধু।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যাক্তি অভিযোগ করেন, দলের সাইন বোর্ড ব্যবহারন করে চাঁদাবাজী,ধন্ধাবাজি,ভুমি জালিয়াতি থেকে তার অপকর্মে এলাকার অতিষ্ঠ বলে জানান এলাকাবাসী। এর আগেও সে এ ধরনের একাধিক ঘটনা ঘটিয়েছে।

অভিযুক্ত লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম বলেন, নিজের আত্মীয় মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। তবে তিনি ঐ গৃহবধুকে যৌন হয়রানীর বিষয়টি অস্বীকার করেন।

এদিকে লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ সদস্য রেম্রাচাই চৌধুরী বিষয়টি শুনেছেন এবং বিষয়টি খতিয়ে দেখে অভিযোগ প্রমাণ হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

লক্ষ্মীছড়ি থানার ওসি হুমায়ুন কবির জানান, মামা-ভাগ্নি একটি বিষয়ে লিখিত অভিযোগ এসেছে। বিষয়টি তাদের পারিবারিক এবং এটি মামলা হওয়ার মত নয় জানিয়ে তিনি বিষয়টি তদন্ত করে দেখবেন বলে জানান। তবে তিনি মামা মধ্যে ইশারা-ইঙ্গিতে অনেকটা যৌন হয়রানীর মত কথা বললেও তা যৌন হয়রানি ও ধর্ষণের চেষ্টার মধ্যে পড়ে না বলে জানান।






News Room - Click for call