Main Menu

কোটালীপাড়ায় খালে বাঁধ দিয়ে মাছ চাঁষ, এলাকাবাসীর ক্ষোভ

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার রামশীল ইউনিয়নের খাগবাড়ী বিষ্ণুমন্দির সংলগ্ন খালে বাধ দিয়ে মাছ চাষ করেছে এলাকার মহানন্দ জয়ধরের ছেলে বিশ্বনাথ জয়ধর ( ৫০)। এছাড়াও জিতেন হালদারের ছেলে পলাশ হালদার (৪৫) এবং রেনু হালদার (৫০) খালের জায়গা দখল করে গড়ে তুলেছে ঘর । এতে চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে এলাকাবাসীর মধ্যে ।

সরজমিনে দেখা যায় , বিষ্ণুমন্দির থেকে জয়ধর বাড়ী পর্যন্ত খালটি যুগ যুগ ধরে পানি প্রবাহ এবং এলাকার জনসাধারনের নৌ চলাচলের কাজে ব্যবহারিত হয়ে আসছে । হঠাৎ এলাকার কিছু লোক উক্ত খালটি জবর দখল করে মাছ চাষ করে ও ঘর তুলে। এতে চরম বিপাকে পড়েছে জনসাধারণ । সুবল চৌধূরী , উজ্জল সরকার , ধীরেন সরকার , হরসিৎ সরকার , পলাশ মল্লিক, বিধান হালদার সহ একাধিক এলাকাবাসী বলেন, শত বৎসর পূর্ব থেকে এ খালটি ছিলো , এখন
বিশ্বনাথ পলাশ রেনু নিজেদের জায়গা দাবি করে খালটি বন্ধ করে দিয়েছে , এতে আমাদের পানি প্রবাহ নৌ চলাচল ও মালামাল পরিবহনে চরম ভোগান্তির সৃষ্টি হয়েছে ।

দীপা রানী বিশ্বাস ও মঞ্জু হালদার বলেন, এই খালটির জায়গা সরকারী না , আমাদের রেকর্ডীয় জায়গা , তাই বন্ধ করে দিয়ে মাছ চাষ ও ঘর তুলেছি ।
৭নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য মৃনাল কান্তি জয়ধর বলেন, পানি নামতে নামতে খালের সৃষ্টি হয়েছে , এখানে কোন সরকারী খাল নেই ,জায়গাটি সম্পূর্ণ আমাদের রেকর্ডীয়, তাই আমার ভাই বিশ্বনাথ জয়ধর বাঁধ দিয়ে মাছ চাষ করেছে ।

এ বিষয়ে রামশীল ইউপি চেয়ারম্যান খোকন বালা বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই , আমি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থানেব ।

এ ব্যাপারে কথা বলার জন্য বিশ্বনাথ জয়ধর , পলাশ হালদার ও রেনু হালদারের বাড়ীতে গিয়ে তাদের পাওয়া যায়নি ।

এ বিষয়ে ভুক্তভুগীরা প্রশাসনের দৃষ্টি আর্কষণ করছে ।






News Room - Click for call