Main Menu

কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ীতে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরীকে ধর্ষণ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে প্রেমের ফাঁদে ফেলে ১৪ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধর্ষণের স্বীকার মেয়েটির বাবা রবিবার (২৩ আগস্ট) সন্ধ্যায় ফুলবাড়ী থানায় ধর্ষণ ও অপহরণের অভিযোগে ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২ জনকে আটক করেছে।

অভিযুক্তরা হলেন- উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ অনন্তপুর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে হুমায়ুন কবীর (২৫) এবং একই ইউনিয়নের আজোয়াটারী ব্যাপারীটারী গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে শামীম হোসেন সুজন (২৮)। বড়ভিটা ইউনিয়নের উত্তর বড়ভিটা গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে আলামিন (২৪) ও একই গ্রামের মৃত মনছুর আলীর ছেলে একরামুল ওরফে ডাইল একরা (৩৬)।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামের নবম শ্রেণীর ছাত্রী ওই কিশোরীর সাথে একই ইউনিয়নের দক্ষিণ অনন্তপুর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলের হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে প্রায় দুই মাস ধরে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। হুমায়ুন কবির গত বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) রাতে ওই কিশোরীকে বিয়ের কথা বলে তাঁর সঙ্গী সুজনকে পাঠিয়ে তাকে উপজেলার উত্তর বড়ভিটা গ্রামের একরামুলের বাড়ীতে নিয়ে আসে। সেখানেই আলামিন ও শামিম হোসেন সুজনের সহযোগিতায় প্রেমিক হুমায়ুন কবির ও বাড়িওয়ালা একরামুল কিশোরীকে জোড়পূর্বক ধর্ষণ করে।

ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাজীব কুমার রায় ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নির্যাতনের স্বীকার মেয়ের বাবা বাদী হয়ে চারজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন। ইতিমধ্যেই দুই আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং বাকি দুইজন আসামীকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।






News Room - Click for call