Main Menu

শিবচরে কচুরিপানা ভাগাভাগি নিয়ে সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত ৫, আটক ৪

মাদারীপুরের শিবচরে পাট জাগ দেওয়ার কচুরিপানার ভাগ নিয়ে বিরোধের জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে জাহাঙ্গীর মাতুব্বর(৫৬) নামের এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (৭ আগষ্ট) সকাল ৮ টার দিকে উপজেলার উমেদপুর ইউনিয়নের কাবিলপুরে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় চায়না (৪০), কাদির মাদবর (৭০), জামাল (৪৫) ও কামাল (৪০),রাজিয়া (৩৫)সহ কমপক্ষে ৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পারিবারিক ও শিবচর থানা পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, বর্ষায় ভেসে আসা কচুরীপানা সংগ্রহ নিয়ে জাহাঙ্গীর মাতুব্বরের সাথে তারই বংসের চাচাতো ভাই বাচ্চু মাতুব্বরের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে টেঁটার আঘাতে জাহাঙ্গীর মাতুব্বরের মৃত্যু হয়। এসময় নিহতের পিতা কাদির মাতুব্বরসহ আহত হয়েছে ৫ জন।

তবে এঘটনায় বাচ্চু মাদবর (৪৫), আবু সাইদ (৩৫),আঃ রহমান( ৪০)ও কালাম (৩৫) নামে চারজনকে আটক করে শিবচর থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহত জাহাঙ্গীর মাদবরের পিতা কাদির মাদবর বলেন,”আমার ছেলেকে ওরা মেরে ফেলছে।আমি এর বিচার চাই”

নিহত জাহাঙ্গীর মাদবরের স্ত্রী নারগীস বলেন,”সকালে জলাশয়ের কচুরীপানা নিয়ে কথা কাটাকাটির সময় আমার স্বামীকে বাচ্চু টেটা দিয়ে কুপিয়ে মেরে ফেলছে।আমি খুনিদের বিচার চাই”

শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আবুল কালাম আজাদ ঘটনার সততা নিশ্চিত করে বলেন, একঘটনায় জড়িত থাকার অবিযোগে আমরা ৪ জনকে আটক করেছি। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন।






News Room - Click for call