Main Menu

শ্রদ্ধা ভালোবাসা ও গভীর শোকে গুইমারা আ’লীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমকে বিদায়

না ফেরার দেশে চলে গেলেন গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজেউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে হৃদরোগে আক্রান্ত জাহাঙ্গীর আলম শনিবার (রবিবার) দিবাগত রাত ৩ টায় চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি ২ ছেলে ও ১ মেয়ের জনক ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

তার মৃত্যু শোক প্রকাশ করেছে খাগড়াছড়ি জেলার আওয়ামীলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন। শেষ শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় গুইমারার মসজিদ মাঠে বাদ জোহর নিহতের নামাজে যানাজা শেষ হয়। পরে তার পৈত্তিক নিবাস রাউজানের গহীরা দ্বিতীয় যানাজা শেষে পারিবারিক পারিবারিক কবরস্থানে নিহতের দাফন সম্পন্ন করা হবে বলে জানা গেছে। তাকে শেষ বাবেরমত এক নজর দেখতে ভীড় করে বিভিন্ন জাতি,ধর্ম,বর্ণ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মানুষ।

ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান, ভারত প্রত্যাগত শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম সংরক্ষিত আসনের নারী এমপি বাসন্তী চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী ও গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী ও খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র মোঃ রফিকুল আলম। এছাড়া জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরীও আলাদা ভাবে শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন।

এছাড়াও খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগ নেতা দিদারুল আলম দিদার, জেলা পরিষদ সদস্য
এড.আশুতোষ চাকমা, এমএ জব্বার, পার্থ ত্রিপুরা জুয়েল, খোকনেশ্বর ত্রিপুরা, মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু, জাহেদুল আলম,শতরূপা চাকমা, খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাব সভাপতি জীতেন বড়ুয়া, সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি নুরুল আজম, গুইমারা প্রেসক্লাব পক্ষ থেকে সাংবাদিক নুরুল আলমসহ বিভিন্ন উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দরা শোক প্রকাশ করেছেন। সে সাথে নিহতের আত্মার শান্তি কামনা করে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

নিহত গুইমারা উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম একাধারে ৩ বার সভাপতির দায়িত্ব পালন করে মৃত্যুর আগমূহুত্ব পর্যন্ত নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে গেছেন। তিনি গুইমারা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ, কেন্দ্রীয় কবরস্থান পরিচালনা কমিটির সভাপতি, রেড ক্রিসেন্ট খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের আজীবন সদস্যসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে যুক্ত ছিলেন বলে জানা গেছে।






News Room - Click for call