Main Menu

মাদারীপুরে যন্ত্রনা সইতে না পেরে গৃহবধুর আত্মহত্যা

মাদারীপুরের কালকিনিতে চাচীর যন্ত্রনা সইতে না পেরে স্বর্না আক্তার(১৯) নামে এক গৃহবধু গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। শনিবার (১১ জুলাই) বিকালে ওই গৃহবধুর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

এলাকা ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার সাহেবরামপুর এলাকার আন্ডারচর গ্রামের কাঞ্চন হাওলাদারের মেয়ে স্বর্না আক্তারের সঙ্গে একই এলাকার আমির সরদারের ছেলে মালোয়শিয়া প্রবাশি জহিরুল ইসলামের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বর্না আক্তার বিভিন্ন সময় বাবার বাড়িতে যাওয়া-আসা করেন। তারই ধারাবাহিকতায় স্বর্না আক্তার কিছু ধরে বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান। কিন্তু স্বর্নার চাচী নাজমা বেগম বাড়িতে বসে বিভিন্ন সময় কারনে-অকারনে স্বর্না আক্তারকে জ্বালা-যন্ত্রনা করেন। এ যন্ত্রনা সইতে না পেরে শনিবার দুপুরে স্বর্না তার নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে।

অভিযুক্ত নাজমা বেগম বলেন, তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে আমাকে স্বর্না বিনা কারনে চর-থাপ্পর দিয়েছে। তাই তাকে তার পরিবারের লোকজন আমার কাছে ক্ষমা চাইতে বলে। এ ক্ষমা চাইতে বলায় লজ্জায় স্বর্না আত্মহত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি (তদন্ত) হারুন অর রশিদ বলেন, চাচীর সাথে ঝগড়া করে স্বর্না আত্মহত্যা করেছে। আমরা তার লাশ উদ্ধার করেছি।






News Room - Click for call