Main Menu

রাজৈরে লিবিয়ায় মানব পাচার চক্রের আরো এক সদস্য গ্রেফতার

লিবিয়ায় মানব পাচার চক্রের আরও এক সদস্য রবিউল মিয়া রবি(৪০)কে গ্রেফতার করেছে মাদারীপুর র‍্যাব-৮। সোমবার রাতে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেরার নূরপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। আটককৃত রবিউল রাজৈর উপজেলার নুরপুর এলাকার মৃত রতন মিয়ার ছেলে।

আজ সোমবার মাদারীপুর র‍্যাব-৮ ক্যাস্পে ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-৮ এর একটি দল সোমবার অভিযান চালিয়ে আন্তর্জাতিক মানব পাচার চক্রের সদস্য, লিবিয়া ও ইতালিতে অবস্থান করে মোটা অংকের বেতনের চাকুরীসহ বিভিন্ন মিথ্যা প্রলোভন দিয়ে মানব পাচার করছে। লিবিয়ায় মানব পাচার চক্রের সক্রিয় সদস্য রবিউল মিয়া মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার নূরপুর গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়।
আসামীকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে উক্ত চক্রের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেন এবং প্রাপ্ত গোপন তথ্য সমূহের সত্যতা পাওয়া যায়। আসামি রবিউল মিয়া অবৈধভাবে লিবিয়ায় বাংলাদেশ হতে বিভিন্ন উপায়ে মানব পাচার করে। বাংলাদেশের বিভিন্ন যুবককে টার্গেট করা থেকে শুরু করে তাদের পরিবারকে প্রলোভন দেখিয়ে অর্থ সংগ্রহের কাজ করে এবং লিবিয়ায় অবস্থানরত তার ছেলে সজীবের সাথে যোগসাজশে অবৈধ পন্থায় লিবিয়ায় বাংলাদেশ হতে মানব পাচার করত। আটককৃত রবিউল এর মাধ্যমে বাংলাদেশে যাবতীয় আর্থিক লেনদেন ও লোক সংগ্রহের কাজ সম্পাদন করে।

মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম আরো জানায়, গ্রেফতারকৃত আসামির বিরুদ্ধে ডিএমপি, ঢাকার পল্টন মডেল থানার মামলা,ডিএমপি, ঢাকা বনানী থানার মানব পাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা রয়েছে। আটককৃত আসামীকে ডিএমপি, ঢাকার পল্টন মডেল থানায় হস্তান্তর প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

উল্লেখ্য লিবিয়ায় হত্যার ঘটনায় মাদারীপুরের ১১ জন যুবক প্রাণ হারায় এবং ৪ জন গুরুতর আহত হয়। মাদারীপুরের নিহতদের পরিবারের সদস্যা রাজৈর ও মাদারীপুর সদর মডেল থানায় পৃথক ৮টি মামলা দায়ের করেন। থানায় দায়ের হওয়া এজাহার নামীয় আসামিদের র‍্যাব অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করে।






News Room - Click for call