Main Menu

শিরোমণিতে ট্রেন ইজিবাইক সংঘর্ষে নিহত নানী নাতনীর জানাজা সম্পন্ন

শিরোমনি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পাশ্বেগত শুক্রবার রেল লাইন পার হওয়ার সময় ইজিবাইক ট্রেন সংঘর্ষেঘটনা স্থলে নিহত শিরোমণি পি শ্চম পাড়া সবুরের স্ত্রী সালমা (৪০) ও হাসপাতালে নিহত কেএমপি দৌলতপুর থানার নারী কনসটেবল সাথী বেগমের মেয়ে আফরিনা (২) ।

নামাজের জানাজা শনিবার সকাল  ১০ টায় শিরোমণি পশ্চিমপাড়া ঈদগাহ্ ময়দানে অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় উপস্থিত ছিলেন খানজাহান আলী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ আবিদ হোসেন, ১নং আটরা গিলাতলা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্বশেখ মনিরুল ইসলাম, মুন্সি মঈনূল ইসলাম, অধ্যাপক মিয়া গোলাম কুদ্দুস, ইউপি সদস্য নবীরুল ইসলাম রাজা, শেখ আব্দুস সালাম,সাবেক ইউপি সদস্য আলহাজ্ব শেখ মফিজুর রহমান, শিরোমণি তরুণ সংঘের সভাপতি শেখ তরিকুল ইসলাম,শিরোমণি হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক শেখ আজিজুর রহমান, সাংবাদিক গাজী মাকুল উদ্দীন ও সাইফুল্লাহ তারেক, জুট স্পিনার্সসিবিএ নেতা সহিদুল ইসলাম , সিবিএ নেতা শেখ আবুল কালাম আজাদ, শেখ মেহেদী হাসান, শেখ আব্দুল হালিম , শেখ সেলিম, জানাজায় ইমামতি করেন হাফেজ মোঃ ওমর ফারুক।

ইজিবাইক ট্রেন দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত কেএমপি নারী কনস্টেবল রেশমা (সাথী) বে গমের শারীরীক অবস্থার অবনতী হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং গুরুতর আহত শিরোমণি পশ্চিম পাড়ার আলম শেখের স্ত্রী সাহানারা বেগম(৩৫) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এদিকে এঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় শোকের মাতম বিরাজ করছে। এধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে দুর্ঘটনা কবলিত স্থানে অতি দ্রুত গেটম্যান ও ট্রেন লাইনের উভয় পাশ্বে দুইটি গতিরোধক দেয়ার জন্য এলাকা বাসি জোর দাবী জানিয়েছেন।

খুলনা মেডিকেল কলেজ আফরিনা (২) গুরুতর আহত ২জন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। জানা যায় গতকাল শুক্রবার বেলা আনুমানিক ৩টা ৪৫ মিনিটের সময় যশোর থেকে ছেড়ে আসা মালবাহী ট্রেন খুলনার দিকে যাচ্ছিল। এসময় শিরোমণি বাজার থেকে ইজিবাইকে করে কেএমপি দৌলতপুর থানার নারী কনষ্টেবল রেশমা ওরফে সাথী বেগম, সাথী বেগমের মা সালমা বেগম(৪০),সাথী বেগমের মেয়ে ও শিরোমণি পশ্চিম পাড়ার আলম শেখের স্ত্রী সাহানারা বেগম(৩৫) শিরোমণি পশ্চিমপাড়ার বাসার দিকে যাচ্ছিল। শিরোমণি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নিকটবর্তিরেললাইন ক্রসিংয়ে ইজিবাইকটি অসাবধান বসত: পার হওয়ার সময় সংঘর্ষে শিরোমণি পশ্চিম পাড়ার আব্দুস সবুরের স্ত্রী সালমা (৪০) ঘটনা স্থলে নিহত হয় এবং কেএমপি দৌলতপুর থানার নারী কনসটেবল সাথী বেগমের মেয়ে আফরিনা (২) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়। গুরুতর আহত হয়ে সাথী বেগম খুলনা মেডিকেল কলেজের আইসিইউতে রয়েছেন এবং শিরোমণি পশ্চিম পাড়ার আলম শেখের স্ত্রী সাহানারা বেগম(৩৫) খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। অপরদিকে ইজিবাইক ড্রাইভার শিরোমণি উত্তরপাড়া হারুন শেখের ছেলে খায়ের পলাতক রয়েছে।






News Room - Click for call