Main Menu

খালেদার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে নয়াপল্টনে ঝটিকা মিছিল

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে ঝটিকা মিছিল করেছেন নেতাকর্মীরা। বিক্ষোভে শতাধিক নেতাকর্মী অংশ নেন।

শুক্রবার (৩১ মে) মিছিলটি রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও দলীয় অফিসের সামনে এসে শেষ হয়।

মিছিল শেষে সরকারের উদ্দেশে রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘ঈদের আগেই খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে। সম্প্রতি কিছু সংবাদ মাধ্যম সরকারের ইন্ধনে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে এমনকি দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে নিয়েও নেতিবাচক খবর প্রকাশ করছে।’

এ সময় অভিযোগ করে বিএনপির এ নেতা বলেন, সরকার ও গোয়েন্দা সংস্থা নানা কূটকৌশল করে বিএনপির মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে না পেরে এখন কিছু গণমাধ্যমকে দিয়ে মনগড়া কল্পকাহিনী রচনা করছে। যার সঙ্গে বাস্তবতার কোনও মিল নেই।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব আরও বলেন, সরকার আদালতকে ব্যবহার করে খালেদা জিয়াকে মিথ্যা বানোয়াট ও সাজানো মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করে রেখেছে। আওয়ামী লীগ সরকার চেয়েছিল তাকে (খালেদা জিয়া) কারাগারে বন্দি করে রেখে বিএনপিকে নিঃশেষ করতে, ধ্বংস করে দিতে। কিন্তু সরকারের সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। লাখ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে হাজার হাজার মিথ্যা ও গায়েবি মামলা দিয়ে, গুম করে, খুন করেও বিএনপি নেতাকর্মীদের দমানো যায়নি।’

রিজভী বলেন, ‘বিএনপিকে ভাঙতে সরকারের কোনও অপচেষ্টাই সফল হয়নি। তাই বিভিন্ন সংস্থা দিয়ে সরকার দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটানোর অপচেষ্টা করছে। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। কারাবন্দি থাকলেও সারাদেশ বিএনপি’র লাখ লাখ নেতাকর্মী খালেদা জিয়ার উপস্থিতি অনুভব করেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সব পর্যায়ের নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধ। দলের কমিটি গঠন, বিভিন্ন কর্মসূচি প্রণয়ন সবই দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করে বাস্তবায়ন করছেন।’

মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য টিএস আইয়ুব, ছাত্রদলের সহ সভাপতি আলমগীর হোসেন সোহান, সহ সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম মিঠু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইফতে খায়রুজ্জামান শিমুল প্রমুখ।






News Room - Click for call