Main Menu

বাগেরহাট সদরের বেমরতা ইউনিয়নের খালকুলিয়া গ্রামটি এখন রনক্ষেত্র, শ্রমিকলীগের নেতারা এখন বিচারের দাবীতে সোচ্ছার, করছে মানববন্ধন

বাগেরহাট সদরের বেমরতা ইউনিয়নের খালকুলিয়া গ্রাম টি ছিল পারষ্পরিক সম্প্রতির স্থান। সেই খালকুলিয়া গ্রামটিতে আওয়ামীলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ ঈদের আনন্দকে ম্লান করে দিয়েছে।

সোমবার ঈদের দিন দুপুরে শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীদের উপর হানা দিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। আর এই ঘটনায় এখন সেখানে হিংসা-বিদ্বেষ আর প্রতিহিংসা বাসা বেঁধেছে। প্রতিহিংসা আর আধিপত্যের লড়াইয়ে এখন শ্রমিকলীগের অফিস যেন পরাজিত সৈনিকে পরিনীত হয়েছে।

যে অফিসে এক সময়ে নেতা কর্মীর পদচারনায় মূখর ছিল। এখন সেখানে আহত নেতা-কর্মীদের আহাজারী। নির্যাতন আর রক্তাক্ত নেতা কর্মীর আহাজারীর স্বাক্ষী হয়ে রয়েছে অফিসটি। কি অপরাধ ছিল তাদের। এমনই প্রশ্ন এখন ঘুরে ফিরে নেতা-কর্মী ও এলাকাবাসীর মুখে।

এদিকে গতকাল বৃহষ্পতিবার বিকালে শ্রমিকলীগের অফিসে হামলা, ভাংচুর আর নেতা-কর্মীদের কুপিয়ে জখমের প্রতিবাদে মানব বন্ধন করেছে এলাকাবাসী। তারা এই ন্যাক্কারজনক ঘটনার শাস্তি চাই। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময়ের সহায়তা কামনা করছেন। এছাড়া প্রশাসনের সহযোগীতা চেয়েছেন সন্ত্রাসীদের আটকের জন্য। নেতা-কর্মীদের নির্যাতনের বিচারের দাবীতে এখন যেমন গ্রামবাসী ঐক্যবদ্ধ। তেমনি বাগেরহাট জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি রেজাউর রহমান মন্টু ও সাধারণ সম্পাদক খাঁন আবুবক্কর সিদ্দিক এই নৃশংস ও নারকীয় ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তী দাবী করেছেন প্রশাসনসহ জনপ্রতিনিধির নিকট।






News Room - Click for call