Main Menu

প্রধানমন্ত্রী জনগনের ভাগ্য পরিবর্তন করবে-শেখ সেলিম

গোপালগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা গোপালগঞ্জ সদর আসনের এমপি ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের উন্নয়ন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, অসাম্প্রদায়িকতা, গনতন্ত্র ও অধুনিক বাংলাদেশের প্রতিক। আগামী নির্বাচনে ভোট দিয়ে শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী করা হলে বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্যের আমূল পরিবর্তন ঘটবে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা আতœ মর্যাদাশীল জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেয়েছি। বাংলাদেশকে এখন চীনের সাথে তুলনা করা হয়। আমাদের প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব শান্তি ও মানবতা রক্ষায় ভূমিকা রাখছেন । তিনি বিশ্বের সৎ নেতাদের মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা ২০২১ সালের মধ্যেই মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হবো ইনশাল্লাহ। আজ শনিবার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতি বিজরিত গোপালগঞ্জ এসএম মডেল গভঃ হাই স্কুলের ১৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও প্রাক্তন ছাত্রদের দ্বিতীয় পুনর্মিলনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন। গোপালগঞ্জ এক্স মডেল স্কুল স্টুডেন্টস্ এসোসিয়েশন (জেমসা) আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আয়োজক সংগঠনের সভাপতি বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি এ্যাড. মোল্লা মোহাম্মদ আবু কাওসারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে উদযাপন কমিটির আহবায়ক র‌্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার, প্রাক্তন ছাত্র মিজানুর রহমান সিপার, মৃনাল কান্তি রায় চৌধূরী পপা সহ আরো অনেকে বক্তব্য রাখেন। তিনি আরো বলেন, মার্কিন ও পাকিস্থানকে টিক্কা দিয়ে ৭১ সালে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে স্বাধীন করেছিলেন। তাই তারা বঙ্গবন্ধুকে বিব্রত করতে ষড়যন্ত্র করে খাদ্য জাহাজ ফিরিয়ে নিয়ে ছিলো। বাংলাদেশে ৭৪ সালে দুর্ভিক্ষ সৃষ্টি করেছিলো। বঙ্গবন্ধুকে বিপাকে ফেলতে তরা পরিকল্পিত ভাবে এসব কাজ করেছিলো। ২০০৯ সালে শেখ হাসিনা সরকার গঠন করার পর পদ্মাসেতু করার উদ্যোগ নেন। কাজা শুরুর আগেই মার্কিন ও বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতু নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ আনে। এর সাথে দেশের তথা কথিত বুদ্ধিজীবীরাও একই সুরে কথা বলেছেন। পরে তারা টাকা ফিরিয়ে নিয়ে যায়। প্রধানমন্ত্রী নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু শুরু করেছেন।






News Room - Click for call