Main Menu

যানজট নিরসনে বাণিজ্যিক রাজধানীতে বিআরটিএর অভিযান

সকাল হতে না হতেই রাস্তায় অবৈধ যান, অনিয়ম, আর যানজটের কারণে ভোগান্তিতে পড়তে হয় চট্টগ্রাম নগরবাসীকে।

এই সমস্যা থেকে নগরবাসীকে পরিত্রাণ দিতে পৃথক অভিযান চালায় বিআরটিএ। এ সময় মামলা দেওয়া হয় ১৬টি, কাগজপত্র জব্দ করা হয় ১২টি, গাড়ির ডাম্পিং ১টি। এসব মিলিয়ে এক লাখ পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

রবিবার (২৬ মে) ঈদকে সামনে রেখে নিরাপদ সড়ক, যানজট নিরসন ও যাত্রীদের স্বস্তির লক্ষ্যে নগরের বিভিন্ন স্থানে চট্টগ্রাম বিআরটিএর দুটি ভ্রাম্যমাণ আদালত এ অভিযান পরিচালনা করে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াউল হক মীরের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত-১ গনি বেকারির মোড়ে অভিযান চালায়। সেখানে অভিযান চলাকালীন মামলা দেওয়া হয় নয়টি, কাগজপত্র জব্দ করা হয় পাঁচটি, ডাম্পিং একটি এবং জরিমানা করা হয় ৭৫ হাজার ৫০০ টাকা।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এস এম মঞ্জুরুল হকের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত-২ অভিযান চালায় বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামের অন্যতম ব্যস্ত এলাকা ইপিজেড মোড়ে। যেখানে থাকতে হবে ঝামেলা ব্যতীত ও সুস্থ পরিবেশ, সেখানেই চলছে অবৈধ ও ত্রুটিপূর্ণ যানবাহন। এই সময় বেশ কিছু গাড়ির কাগজপত্র চেক করা হয়। এ সময় মামলা দেওয়া হয় সাতটি, জরিমানা করা হয় ৩০ হাজার টাকা, ডকুমেন্ট জব্দ করা হয় সাতটি।

বিআরটিএর কর্মকর্তারা দৈনিক অধিকারকে জানান, তাদের চলমান এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। চট্টগ্রাম নগরীর সড়কগুলো ইতোমধ্যে অনেকটা নিরাপদ হয়ে উঠেছে। জেলা-উপজেলাতেও আমাদের এই অভিযান চলবে। বরাবরই ভুক্তভোগীরা বিআরটিএর সঙ্গে থাকার আহ্বান জানান কর্মকর্তাগণ।






News Room - Click for call