Main Menu

মাদারীপুরে আন্ত:জেলা ডাকাত দলের ৬ সদস্য আটক, মূল্যবান জিনিসপত্র উদ্ধার

আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৬ সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে মাদারীপুর সদর মডেল থানা পুলিশ। মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে মাদারীপুর জেলা পুলিশ সংবাদ সম্মেলন করে উদ্ধারকৃত মূল্যবান জিনিসপত্রসহ আটককৃতদের বিষয়ে সাংবাদিকদের বিষয়টি অবহিত করেন।

সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ জানান, গত ৯ ফেব্রুয়ারী ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কযোগে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের ৬ জনের একটি দল মাইক্রোবাসে মাদারীপুরে আসছিল। এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ সওগাতুল আলম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে সদর উপজেলার মস্তফাপুর এলাকায় থেকে ৬ ডাকাতকে গ্রেফতার করেন।

আটককৃত ডাকাতরা হলেন- মুন্সিগঞ্জের বিক্রমপুর থানার আব্দুল্লাপুর গ্রামের সামচুল হক বেপারীর তিন ছেলে শরীফ বেপারী (২৭), সোহাগ বেপারী (৩১), জাহিদ বেপারী (২০), একই গ্রামের আব্দুল জলিল বেপারীর ছেলে নয়ন বেপারী (২২), ঢাকার মিরপুরের বাচ্চু মিয়ার ছেলে ইয়াছিন মিয়া (৩০) ও একই এলাকার আক্কেল আলী শেখের ছেলে রুবেল শেখ (২৬)। এসময় ডাকাতদের কাছ থেকে ৬ ভরি স্বর্ণসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ও ডাকাতির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

ডাকাতদের তথ্যমতে, এসব জিনিসপত্র বরিশালের একটি বাসা থেকে ডাকাতি করেছে বলে স্বীকার করেন। সংবাদ সম্মলনে এসময় বক্তব্য রাখেন মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ বদরুল আমল মোল্লা ও মাদারীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ সওগাতুল আলম।

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক বলেন, ডাকাত দলের সদস্যরা বৃহত্তর বরিশাল, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, গোপালগঞ্জ, ফরিদপুরসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় সংঘবদ্ধ হয়ে ডাকাতি করে। উদ্ধারকৃত জিনিসপত্র ক্ষতিগ্রস্থ্যদের বুঝিয়ে দেয়া হয়। ডাকাতাদের বিরুদ্ধে বরিশাল কোতোয়ালি থানায় একটি ডাকাতি মামলা করা হয়েছে। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে একাধিক চুরি, ডাকাতিসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে। ডাকাতরাও আন্তঃজেলা ডাকাতদলের সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছে।






News Room - Click for call